বৃহস্পতিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন

ঢাকা-আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে ফ্লাইট চালু করছে ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স

  • টাইম আপডেট : মঙ্গলবার, ৯ মে, ২০২৩
  • ১৮ কত বার দেখা হয়েছে
ঢাকা-আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে ফ্লাইট চালু করছে ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স

বাংলাদেশি যাত্রীদের আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে আনা-নেওয়ার টার্গেট নিয়ে ঢাকা থেকে ফ্লাইট চালু করার প্রস্তুতি নিচ্ছে ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স। চলতি মাসেই ফ্লাইট পরিচালনার বিষয়ে বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) সঙ্গে চুক্তি করবে তারা।

বেবিচকের দায়িত্বশীল সূত্র এ খবর নিশ্চিত করেছে। তারা জানায়, এয়ারলাইন্সটি ২০২২ সালে বাংলাদেশে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি চেয়েছিল। বেবিচক তাদের নিজ দেশের কূটনীতিকদের মাধ্যমে (ডিপ্লোম্যাটিক চ্যানেল) যোগাযোগ করে সুনির্দিষ্ট প্রক্রিয়ায় আবেদনের অনুরোধ করে। পরে নির্ধারিত প্রক্রিয়া মেনে তারা ফ্লাইট পরিচালনার আবেদন করে।

Celebrating novo mobile

বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান বলেন, ইথিওপিয়ার সঙ্গে সহসাই আমাদের একটি চুক্তি হবে। চুক্তি হলে তারা ফ্লাইট পরিচালনা করতে পারবে। বাংলাদেশের সঙ্গে দক্ষিণ এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য এবং আফ্রিকার যোগাযোগ স্থাপনের জন্য ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে।

চুক্তি সম্পাদনের পর কবে নাগাদ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে এই সিদ্ধান্ত নেবে ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স।

বেবিচকের সঙ্গে আলাপকালে ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স জানায়, দক্ষিণ আফ্রিকাসহ আফ্রিকান দেশগুলোতে প্রচুর বাংলাদেশি রয়েছে। তারা সেসব বাংলাদেশি যাত্রীদের ইথিওপিয়ায় ট্রানজিট দিয়ে অল্প সময়ে আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে পৌঁছে দিতে চায়। বর্তমানে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক এয়ারলাইন্সগুলো এসব যাত্রী বহন করছে। এতে যাত্রীদের অনেক সময় নষ্ট হচ্ছে।

যেসব দেশে আনা-নেওয়া করতে চায় ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স

ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স বর্তমানে ৭৭টি এয়ারক্রাফট দিয়ে ১০১টি রুটে যাত্রীবাহী এবং ২৩টি রুটে কার্গো ফ্লাইট পরিচালনা করে।

এয়ারলাইন্স সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ থেকে যাত্রী নিয়ে ইথিওপিয়া ট্রানজিট হয়ে আফ্রিকান রুট কায়রো (মিশর), হারারে ও বুলাওয়ে (জিম্বাবুয়ে), দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গ ও কেপটাউন, কেনিয়ার নাইরোবি, ইতালির মিলান ও রোম, যুক্তরাজ্যের লন্ডন ও ম্যানচেস্টার, সুইজারল্যান্ডের জুরিখ ও জেনেভা, সুইডেনের স্টোকহোম, বেলজিয়ামের ব্রাসেলস, গ্রিসের অ্যাথেন্স, রাশিয়ার মস্কো, ফ্রান্সের প্যারিস ও জার্মানির ফ্র্যাংকফুর্টে নিয়ে যাবে।

এছাড়া কানাডার টরন্টো, যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসি, নিউইয়র্ক ও শিকাগো, চীনের গুয়াঞ্জু, বাহরাইন, কুয়েত, দক্ষিণ কোরিয়ার সিউল, জাপানের টোকিও ও হংকংয়েও ফ্লাইট রয়েছে তাদের।

এ বিষয়ে ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের মিডিয়া বিভাগের সঙ্গে ঢাকা পোস্টের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলে তারা জানায়, ফ্লাইট সংখ্যা চূড়ান্ত হলে পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে।

আরও যেসব এয়ারলাইন্স বাংলাদেশে আসতে আগ্রহী

বেবিচক সূত্রে জানা গেছে, ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স ছাড়াও পাকিস্তানের পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স (পিআইএ), যুক্তরাজ্যের ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ, ইন্দোনেশিয়ার গারুদা ইন্দোনেশিয়া এবং ইরাক এয়ারলাইন্স বাংলাদেশে ফ্লাইট পরিচালনার আগ্রহ দেখিয়েছে। পিআইএ বেশ কয়েকবার মৌখিকভাবে ফ্লাইট চালানোর আগ্রহের কথাও বলেছে।

যুক্তরাজ্যের হাই কমিশনও বেবিচকের কাছে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের বাংলাদেশে ফ্লাইট পরিচালনার আগ্রহের কথা জানিয়েছে। তবে তারা এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে ফ্লাইটের বিস্তারিত জানিয়ে আবেদন করেনি।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশ থেকে কূটনৈতিকভাবে সবুজ সংকেত পেলে পিআইএ লিখিতভাবে বেবিচকে আবেদন করবে।

নিউজটি শেয়ার করুন সোশ্যাল মিডিয়াতে..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ধরণের আরো খবর জানতে..